মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

ফসলের উন্নত জাত

ক্রমিক নং

ফসলের নাম

উৎপাদন বৃদ্ধির কলা-কৌশল

উৎপাদন বৃদ্ধিতে করণীয়

বাস্তবায়ন কারী

০১.

 

 

 

বোরো

ধান

১.বোরো  মৌসুমে স্থানীয় জাতের পরির্বতে উফশী জাতের আওতায় এলাকা বৃদ্ধির মাধ্যমে উৎপাদন বৃদ্ধি করা।

(ক)বোরো উন্নত আধুনিক জাতের আবাদ সম্প্রসারণ করা।

(খ)এলাকাভিওিক লাগসই উপযুক্ত জাতের আবাদ সম্প্রসারণ করা।

জেলা/উপজেলা কৃষি অফিস

২.হাইব্রিড ধানের আবাদ সম্প্রসারণের মাধ্যমে বোরো ধানের উৎপাদন বৃদ্ধি করা।

(ক) বোরো মৌসুমে হাইব্রিড ধানের আবাদ এলাকা বৃদ্ধি করা।

(খ) হাইাব্রড ধানের বীজ প্রাপ্তি নিশ্চিত করা।

(গ) নি©র্দশনা মোতাবেক সময়মত উপযুক্ত পরিচর্যা করা।

উপজেলা কৃষি অফিস/

এসএএও

৩.মান সম্পন্ন ধান বীজ ব্যবহারের মাধ্যমে উৎপাদন বৃদ্ধি করা।

(ক) বীজ শোধন করা/বীজ বপনের আগে রোদে শুকানোএবং বীজের অংকুরোদগম পরীক্ষার মাধ্যমে মান নিশ্চিত করা।

(খ) উন্নতমানের আর্দশ বীজতলা তৈরী করা।

(গ) এসএএও ও কৃষকদের কে প্রশিক্ষন প্রদান।

 

এসএএও

৪.সঠিক বয়সের চারা,সময়মত রোপণ।

(ক)সঠিক বয়সের চারা রোপন ও অনুমোদিত দুরত্বে চারা রোপন।

(খ)সঠিক সময়ের মধ্যে রোপন কাজ সম্পন্ন করা।(গ) কৃষকদের উদ্ধুদ্ধ করণ সভা করা।

 

এসএএও

৫.সুষমসার ব্যবহারের মাধ্যমে উৎপাদন বৃদ্ধি করা।

(ক)এইজেড অনুযায়ী সার ব্যবহার নির্দেশিকা মোতাবেক এলাকাভিওিক মাটি পরীক্ষার ভিত্তিতে সুষম সার ব্যবহার করাএবং কৃষক প্রশিক্ষন প্রদান।

(খ)ইউরিয়া সাশ্রয়ের লক্ষ্যে গুটি ইউরিয়া সার ব্যবহার বৃদ্ধি করা।  

(গ) ইউরিয়া সারের অপচয় রোধ করার জন্য লীফ কালার চার্ট ব্যবহার করে ইউরিয়া প্রয়োগ করা ।

উপজেলা কৃষি অফিস/

এসএএও

 

 

ক্রম নং

ফসলের নাম

উৎপাদন বৃদ্ধির কলা-কৌশল

উৎপাদন বৃদ্ধিতে করণীয়

বাস্তবায়ন কারী

বোরো

৬.জমির উর্বরতা বৃদ্ধির মাধ্যমে ফলন বৃদ্ধি করা।

(ক) আমন ধানের নাড়া পুড়ানো,ফসল কর্তন শেষে পতিত জমিতে ধৈঞ্চা চাষ করা।

(খ)গোবর / কম্পোষ্ট / আর্বজনা পচা সার ব্যবহার বৃদ্ধি করা ও কৃষকদের উদ্ধুদ্ধ করণ সভা করা।

(গ) সুজ সার ব্যবহার বৃদ্ধি করা এবং ফসলের পর্যাক্রমিক চাষ করা।

 

এসএএও

৭.সেচ ব্যবস্থা উন্নয়নের মাধ্যমে ফলন বৃদ্ধি করা।

(ক) বোরো মেীসুমে অধিক জমি সেচের আওতায় আনা।

(খ) এ ডবিলউ ডি পদ্ধতিতে সেচের সম্প্রসারণ বৃদ্ধি করা।

(গ) সকল সেচ যন্ত্রকে সচল করাএবং সঠিক মসয়ে সেচ যন্ত্রগুলি চালু করা।

(ঘ) ভূ-উপরিস্থ পানির ব্যবহার বৃদ্ধি করা।

(ঙ) বৃষ্টির পানি সেচ কাজের জন্য সংরক্ষন করা

উপজেলা কৃষি অফিস/

এসএএও

৮. বালাই ব্যবস্থাপনা।

(ক) নিয়মিত সার্ভিলেন্স ও মনিটরিং করা খ) পোকা মাকড় দমনে আইপিএম পদ্ধতি প্রয়োগ করা।

(গ) পোকা মাকড় দমনে আইপিএম পদ্ধতি প্রয়োগ করা।

(ঘ) পার্চিং,লাইট ট্র্যাপিং,হাতজাল ব্যবহারের মাধ্যমে পোকামাকড় দমন করা।

(ঙ) বিপিএইচ প্রবন এলাকায় প্রতিরোধী সহনশীল জাতের ধান আবাদ করা।

(চ) এসএএও ও কৃষকদের কে প্রশিক্ষন প্রদান।

 উপজেলা কৃষি অফিস/

এসএএও

৯. উন্নত ফসল/জাত ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে ফলন বৃদ্ধি করা।

(ক) উদ্ধুদ্ধকরণ,কৃষক প্রশিক্ষন,পরার্মশ কেন্দ্রে কৃষক ব্রিফিং/পরার্মশ প্রদান।

(খ) বীজতলা পরিচর্যা,আগাছা দমন ও নিয়মিত সেচ প্রদান সহ পরিচর্যা ও মনিটরিং করা।

উপজেলা কৃষি অফিস/

এসএএও

১০. বিবিধ কৌশল।

(ক) প্রযুক্তি সহায়তা গ্রহন।

(খ) রেডিও, টেলিভিশনসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে উৎপাদন কৌশল ও জরুরী করণীয় বিষয় গুলি প্রচার/ প্রচারনার ব্যবস্থা  গ্রহণ করা।

(গ) তদারকী ও মনিটরিং জোড়দার করণ।

অঞ্চল/জেলা/উপজেলা কৃষি অফিস/গবেষনা প্রতিষ্ঠান/এআইাসে।

 

 

 

ক্রম নং

ফসলের নাম

উৎপাদন বৃদ্ধির কলা-কৌশল

উৎপাদন বৃদ্ধিতে করণীয়

বাস্তবায়ন কারী

গম

১.উচ চ ফলনশীল জাত সম্প্রসারন বৃদ্ধি করা।

উচ্চফলন শীল জাতের বারী গম-১৯,২১,২২,২৩,২৪,২৫,২৬জাত সম্প্রসারণ বৃদ্ধি করা।

ইউএও/এনএএও

২.উপযুক্ত সময়ে বীজ বপন নিশ্চিতকরণ।

নভেম্বর(১৫-৩০)তারিখের মধ্যে গম বীজ বপন করলে ভাল ফলন পাওয়া যায়। তবে গমে তাপ সহিষ্ণু বারী জাতের গম দেরীতে বপনেও তুলনমূলক ভাল ফলন পাওয়া যায়। এসএএও ও কৃষকদের কে প্রশিক্ষন প্রদান।

উপজেলা কৃষি অফিস/

এসএএও

৩.ছত্রাক নাশক দ্বারা বীজ শোধন নিশ্চিত,করনের জন্য উদ্ধুদ্ধকরণ।

ছত্রাকনাশক দ্বারা বীজ শোধন করা, জাতে চারার সংখ্যা ১৫-২০ ভাগ বৃদ্ধি পায় এবং ফলন শতকরা প্রায় ১২-১২ ভাগ বেশী পাওয়া যায়। কৃষকদের কে প্রশিক্ষন প্রদান।

 

এসএএও

৪.সুষম মাত্রায় সার প্রয়োগ।

সুষম মাত্রায় সার ব্যবহারের জন্য কৃষকদেরকে উদ্ভোদ্ধ করা। তাতে করে গমের ফলন বৃদ্ধি পায়।

এসএএও

৫.পরিমিত মাত্রায় সেচ নিশ্চিত করা।

বীজ বপনের পর উপযুক্ত সময়ে সেচ প্রদান নিশ্চিত করা।গম বপনের ১৭-২১ দিন পর ১ম সেচ এবং শীষ বের হওয়ার পূর্ব মুহূর্তে অর্থাৎ বপনের ৫০-৫৫ দিনের মধ্যে ২য় সেচ প্রদানের নিশ্চিত করা।

 

এসএএও

 

 

ক্রম নং

ফসলের নাম

উৎপাদন বৃদ্ধির কলা-কৌশল

উৎপাদন বৃদ্ধিতে করণীয়

বাস্তবায়ন কারী

ভূট্রা

১. রবি মৌসুমে ভূট্টা চাষ লাভজনক

রবি মৌসুমে চর এলাকা থেকে পানি সরে যাওয়ার পর অনাবাদী জমিতে ভূট্টা চাষ সম্প্রসারন করা।

উপজেলা কৃষি অফিস/

এসএএও

 

 

২. সাথী ফসল হিসেবে ভূট্টা আবদি সম্প্রসারন করা

আলু ও কুমড়া ফসলে সাথী ফসল হিসাবে ভূট্টা আবাদ সম্প্রসারণ করা।

এএএও

 

 

৩. বীজ শোধন এবং সুষম সার ব্যবহার করা

মাটি ও বীজ থেকে উদ্বুত রোগ প্রতিরোধের জন্য ভূট্টার বীজ শোধন করলে প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। প্রতি কেজি বীজে ৩গ্রাম ভিটাভেক্স মিশিয়ে শোধন করে নিলে বীজ পচে যাওয়া অথবা চারা  অবস্থায় গোড়া পচে যাওয়া থেকে ফসল রক্ষা পায় ও ফলন বৃদ্ধি পায়। জমির উর্বরতা ভেদে সুষম পরিমিত সার বিশেষ করে গোবর সার ভূট্টা ক্ষেতে ব্যবহার করলে ভাল ফলন পাওয়া যাবে।কৃষক প্রষিক্ষন।

উপজেলা কৃষি অফিস/

এসএএও

আলু

১. প্রত্যায়িত / মানসম্পন্ন বীজ ব্যবহার

আলুর উন্নতমান উন্নত জাতসমূহের মানঘোষিত বীজ উৎপাদন ও বিপণন ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণ। (উন্নত জাত- ডায়মান্ড, কার্ডিনাল, গ্র্যানুলা) মানসম্পন্ন বীজ ব্যবহার সম্প্রসারণ করা।

উপজেলা কৃষি অফিস/

এসএএও

২. উন্নত প্রযুক্তির প্রদর্শণী স্থাপন ,সুষম সার ব্যবহার ও কৃষক প্রশিক্ষণ

কৃষকদেরকে প্রযুক্তি সহায়তা প্রদান নিশ্চিত করা। কৃষক প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা।

উপজেলা কৃষি অফিস/

এসএএও

৩. বীজ আলু সংরক্ষণ ও বিপণন  ও বালাই ব্যবস্থাপনা

বীজ সংরক্ষণের জন্য হিমাগার তৈরির ব্যবস্থা নেয়া। ন্যায্য মূল্যে কৃষকদের আলুবীজ প্রাপ্তি নিশ্চিত করা।

উপজেলা কৃষি অফিস/

এসএএও

সবজি

১. উন্নত জাতের বীজ/ চারা উৎপাদন, ব্যবহার ও সম্প্রসারণের মাধ্যমে উৎপাদন বৃদ্ধি।

উন্নত জাতের মানসম্পন্ন বীজ/ চারা সরবরাহ নিশ্চিতকরণ।

উপজেলা কৃষি অফিস/

এসএএও

২. বসত বাড়িতে সবজি উৎপাদন বৃদ্ধি

বসত বাড়ির আঙ্গিনায় সবজি উৎপাদন কর্মসূচির মাধ্যমে  সবজির উৎপাদন বৃদ্ধিকরণ।

এ এ এও

৩. উন্নত প্রযুক্তির প্রদর্শণী স্থাপন ও কৃষক প্রশিক্ষণ

কৃষক প্রশিক্ষণ, মাঠ দিবস ও বিভিন্ন প্রকার প্রচার প্রচারনার মাধ্যমে কৃষকদের নিকট প্রযুক্তি প্রদান করা।

উপজেলা কৃষি অফিস/

এসএএও